ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬
৩২ °সে


গোদাগাড়ীতে প্রাথমিক বিদ্যালয় নদীগর্ভে বিলীন

গোদাগাড়ীতে প্রাথমিক বিদ্যালয় নদীগর্ভে বিলীন
গোদাগাড়ীতে নদীগর্ভে বিলীন হওয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়। ছবি: ইত্তেফাক

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার চরআষারিয়াদহ ইউনিয়নের দিয়াড় মানিকচক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর দেড়টার মধ্যে নদীর ভাঙনে বিদ্যালয়টি বিলীন হয়। নদীর এ ভাঙন দেখে স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

নদী তীরের অনেক মানুষ ইতিমধ্যে তাদের স্থাপনা, বসতঘর ও মালামাল সরিয়ে নিতে শুরু করেছে। চর আষাড়িয়াদহ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মাসুদ রানা উজ্জ্বল বলেন, 'দিয়াড় মানিকচক বোয়ালমারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও বন্যা আশ্রয় কেন্দ্রের (ফ্লাড সেন্টার) একটি ভবন বৃহস্পতিবার সকালে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।

তিনি আরও জানান, ১৫ দিনের ব্যবধানে পদ্মার পানি কমে যাওয়ার ফলে ভাঙ্গন তীব্র আকার ধারণ করেছে। এতে করে চর বয়ারমারী আমিনপাড়া গ্রামের শতাধিক বাড়িঘর সম্পূর্ণরূপে পদ্মা নদীতে বিলীন হয়েছে। গ্রামটির আরও দুই শতাধিক বাড়ি বিলীন হওয়ার আশংকা রয়েছে। নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত লোকজন খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে।

গোদাগাড়ীতে নদীগর্ভে বিলীন হওয়া আশ্রয়কেন্দ্র। ছবি: ইত্তেফাকগোদাগাড়ীতে নদীগর্ভে বিলীন হওয়া আশ্রয়কেন্দ্র। ছবি: ইত্তেফাক

দিয়াড়মানিকচক বোয়ালমারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বজলুর রশিদ বলেন, শেষ পর্যন্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়টি রক্ষা করা গেল না। এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মমতাজ মহলকে অবহিত করেছি। এ বিদ্যালয়টিতে সবমিলে ৪০০ জন শিক্ষার্থী লেখাপড়া করে। আমরা এখন খুব আতংকের মধ্যে শিক্ষার্থীদের ক্লাশ নিচ্ছি।

চরআষারিয়াদহ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সানাউল্লাহ বলেন, আগে থেকেই স্কুলটি নদী ভাঙনের ঝুঁকিতে ছিলো। বেশ কয়েকদিন আগে স্কুলের ভবনের কিছু জায়গায় ফাটল ধরে। সকালের দিকে ভবনটির ধ্বসে পড়ে।

গোদাগাড়ী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মমতাজ মহল বলেন, দিয়াড়মানিকচক বোয়ালমারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটি ভবন নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ায় রাজশাহী জেলা ও বিভাগীয় পরিচালককে অবহিত করা হয়েছে। স্কুলের দরোজা, জানালা, আসবাব পত্র সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: খুলনাসহ ১৫ জেলায় ট্যাংকলরি শ্রমিকদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু

তিনি আরও বলেন, শিক্ষার্থীদের পড়ালেখা যাতে বন্ধ না হয় সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ইত্তেফাক/এএন

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২২ অক্টোবর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন