ঢাকা রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬
১৯ °সে

প্রথম টেস্ট আজ শুরু

চ্যালেঞ্জ ছাপিয়ে জয়ের ভাবনায় বাংলাদেশ

চ্যালেঞ্জ ছাপিয়ে জয়ের ভাবনায় বাংলাদেশ
মুমিনুল হক ও বিরাট কোহলি। ছবি: সংগৃহীত

ইন্দোরের হোলকার স্টেডিয়াম আয়তনে অনেক বড়ো নয়। তিনতলা গ্যালারির চেয়ারগুলো হলুদ, নীল রঙে আচ্ছাদিত। মধ্যপ্রদেশ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের অধীন স্টেডিয়ামের গ্যালারিগুলোর নামকরণ করা হয়েছে ভারতীয় কিংবদন্তি ক্রিকেটারদের নামে। সুনীল গাভাস্কার, কপিল দেব, শচীন টেন্ডুলকার, অনীল কুম্বলেদের নাম শোভা পাচ্ছে গ্যালারিতে।

ভারতের বর্তমান টেস্ট দলটার অনেকের নামও ভবিষ্যতে গ্যালারির নামকরণে ব্যবহার হবে। কারণ এই দলে কয়েকজন বিশ্ব কাঁপানো ক্রিকেটার আছেন। বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন দলটা সাদা পোশাকে ক্রিকেট দুনিয়ার এক নম্বর। ব্যাটিং, বোলিং মিলে দুর্দান্ত। ঘরের মাটিতে যারা প্রায় অপ্রতিরোধ্যই বলা চলেও। যদিও ভারতের অধিনায়ক কোহলি বলছেন, ভারতকে হারানোর সামর্থ্য রয়েছে বাংলাদেশের। নিছক সম্মান দেওয়ার রীতিটা ধরে রেখেছেন তিনি।

তবে বাংলাদেশের নতুন টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক রাখঢাক না রেখেই বলেছেন, আজ ইন্দোরে সিরিজের প্রথম টেস্টে জয়ের লক্ষ্যেই খেলতে নামবে তার দল। হোলকার স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ-ভারত টেস্ট শুরু হবে আজ সকাল ১০টায়।

কোহলি, পূজারা, রোহিত শর্মাদের নিয়ে পোক্ত ব্যাটিং লাইন ভারতের। ইশান্ত শর্মা, উমেশ যাদব, মোহাম্মদ শামি আছেন পেস আক্রমণে। স্পিনের ভার সামলে থাকেন রবিচন্দন অশ্বিন ও রবীন্দ্র জাদেজা। উলটো দিকে বাংলাদেশ দলে নেই সাকিব-তামিমের মতো দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। সঙ্গে নতুন অধিনায়ক। মুশফিকুর রহিম কিপিং ছেড়ে শুধু ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলবেন এই টেস্ট থেকে।

আরো পড়ুন: রাজনৈতিক পরিচয়ে উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করত আসামিরা

বাংলাদেশের সামনে তাই বিশাল চ্যালেঞ্জ। মুমিনুল অবশ্য জয়ের লক্ষ্য থেকে কক্ষচ্যুত হচ্ছেন না এত প্রতিকূলতা দেখেও। গতকাল বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেছেন, ‘লক্ষ্য অবশ্যই ভালো খেলা। আমরা জেতার জন্যই মাঠে নামব। আপনি যখন যাদের বিপক্ষেই খেলেন, প্রতিপক্ষ যত শক্তিশালীই হোক কেউ হারার জন্য মাঠে নামে না। সবাই সবসময় জেতার জন্যই মাঠে নামে। আমিও এভাবেই ভাবি। আমরা সব সময় সব ম্যাচে জেতার লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামি।’

প্রতিপক্ষ অনেক শক্তিশালী বলেই কি না নিজেদের ওপর কোনো চাপ নেই বলে মনে করেন মুমিনুল। গতকাল তিনি বলেছেন, ‘আমার কাছে মনে হয়েছে আমাদের কোনো চাপ নেই। কারণ আমাদের কোনো প্রত্যাশা ঐরকম নেই। আপনারাও জানেন, আমরাও জানি সবাই জানে। আমাদের ঐরকম চাপও নেই। আমরা আমাদের ভালো ক্রিকেট খেলার চেষ্টা করব।’

টেস্টের এক নম্বর দলের বিরুদ্ধে নয় নম্বর দলের হারানোর কিছু নেই, এটাই স্বাভাবিক। মুমিনুল তাই চাপমুক্ত থেকে লড়তে চান সর্বস্ব দিয়ে। নিংড়ে দিতে চান সেরাটা।

মুমিনুলের নেতৃত্বেই আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের যুগে প্রবেশ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। প্রথম অ্যাসাইনমেন্টটাই বড্ড শক্ত হয়ে গেল। তবে নতুন অধিনায়ক বলছেন, মানসিকভাবে শক্ত থাকতে পারলে, ভালো খেলতে পারলে এই সিরিজেই আগামীর ধারাবাহিক সফলতার দুয়ার উন্মোচিত হবে।

ইত্তেফাক/বিএএফ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন