গোলাপি বলে রোমাঞ্চিত বাংলাদেশ

আজ দল যাচ্ছে কলকাতায়

প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ইডেন টেস্টকে সামনে রেখে গোলাপি বলের অনুশীলনে ব্যস্ত স্পিনাররা —মোশারফ হোসেন, ইন্দোর থেকে

স্পোর্টস রিপোর্টার, ইন্দোর থেকে

তিন দিনে হারের ধকল ভুলে ইন্দোরেই পিংক বলের অনুশীলনে মনোযোগী হতে হয়েছে বাংলাদেশ দলকে। বিপর্যস্ত সময়ের ছবিটা মুছে দিতে অন্য কোনো ভেন্যুতে যাওয়ার সুযোগ ছিল না। ইন্দোরের হোলকার স্টেডিয়ামেই গত দুই দিন বিকালে পিংক বলে অনুশীলন করেছে বাংলাদেশ।

আজ অবশ্য মুমিনুল হকের দল ইন্দোরের স্মৃতিকে পেছনে ফেলছে আক্ষরিক অর্থেই। আজ সকালের ফ্লাইটে ইন্দোর থেকে কলকাতা যাচ্ছেন মুশফিক-মাহমুদউল্লাহরা। ইডেন গার্ডেন্সে আগামী ২২ নভেম্বর শুরু হবে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট।

ইন্দোরে টেস্টটা বল হাতে ভালো কাটেনি মেহেদী হাসান মিরাজের। ডানহাতি এই অফস্পিনার ভরসা জোগাতে পারেননি দলকে। শেষ পর্যন্ত একটি উইকেট পেয়েছেন তিনি। তবে সেটিও ডাবল সেঞ্চুরিয়ান মায়াঙ্ক আগারওয়াল। যখন উইকেট পেয়েছেন, ততক্ষণে আগারওয়াল বাংলাদেশের সর্বনাশ করে ফেলেছিলেন।

গতকাল হোলকার স্টেডিয়ামে দেখা গেল, একদিকের নেটে আলাদাভাবে পিংক বল নিয়ে কাজ করছিলেন। তার দেখভাল করছিলেন স্পিন কোচ ড্যানিয়েল ভেট্টোরি। লম্বা সময় নেটে ভেট্টোরির অধীনে বোলিং করেছেন মিরাজ। ইন্দোরে অকার্যকর হলেও কলকাতায় পিংক বলের টেস্ট নিয়ে বেশ রোমাঞ্চিত এই তরুণ ক্রিকেটার।

পিংক বল টেস্ট নিয়ে গতকাল অনুশীলনের পর মিরাজ সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘নতুন একটা অভিজ্ঞতা, টেনশন না। বরং বাড়তি রোমাঞ্চ কাজ করছে পিংক বলে খেলবে প্রথমবার। স্বাভাবিক যেরকম হয় সেরকমই, সবাই স্বাভাবিক আছি। সবসময় যেভাবে ম্যাচে, মাঠে নামি সেরকমই আছি।’

পিংক বলে ব্যাটিংও করেছেন মিরাজ গতকাল অনুশীলনে। সেই অভিজ্ঞতা জানাতে গিয়ে এই তরুণ বলেন, ‘আজকে (গতকাল) আমি ব্যাটিং করেছি তো বলটা একটু মুভ করছিল। আমার কাছে মনে হয় বলটা একটু ভারি ব্যাটে লাগলে খুব দ্রুত যায়। আমার কাছে মনে হয়, পিংক বলে সুইং থাকতে পারে একটু বেশি প্রথম দিকে, অনেক সময় কাটও করতে পারে—আমার কাছে মনে হয়। দেখলাম মাঝে মাঝে বল কাটও করছে। তারপরও ম্যাচে গেলে কেমন হয়, মূল কথা কারোরই অভিজ্ঞতা নেই।’

ব্যাটিংয়ে শুরুর সময়টা কাটাতে হবে ওপেনারদের। তারপর ব্যাটিং সহজ হয়ে যেতে পারে বলে ধারণা করছেন মিরাজ। আর স্পিনার বাউন্স, টার্ন পেতে পারেন। ডানহাতি এই স্পিনার বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয় স্পিনাররা স্কিড করতে পারবে বেশি, বাউন্সও থাকতে পারে, টার্নও থাকতে পারে। যতটুকু অনুশীলন করলাম মনে হচ্ছে বলটা সামনে হচ্ছে, বাউন্স থাকছে স্পিনাদের জন্য। এটা হয়তো বাড়তি সুবিধা হবে স্পিনারদের জন্য।’

ইন্দোরে দুই দিন ফ্লাডলাইটের আলোতেও পিংক বলে অনুশীলন করল বাংলাদেশ। তার পরিপ্রেক্ষিতেই মিরাজ বলেন, সন্ধ্যার পর শিশিরের কারণে বল ভিজে গেলে মুভ করার চেয়ে স্কিড করবে বেশি।

বল নিয়ে যত গবেষণাই হোক, ইন্দোরের মতো কলকাতাতেও বাংলাদেশের জন্য কঠিন পরীক্ষা অপেক্ষা করছে, কারণ প্রতিপক্ষ পিংক বলে নতুন হলেও টেস্টের ১ নম্বর দল, ভারত।