ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
২৭ °সে

ঘরে ঘরে বিদ্যুত্, এর চেয়ে বড়ো উন্নয়ন মেলা আর কী হতে পারে --------------------পরিকল্পনামন্ত্রী

ঘরে ঘরে বিদ্যুত্, এর  চেয়ে বড়ো উন্নয়ন মেলা  আর কী হতে পারে --------------------পরিকল্পনামন্ত্রী

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, ‘দেশের ৯৬ শতাংশ ঘরে বিদ্যুতের সংযোগ পৌঁছে যাওয়াই উন্নয়নের সবচেয়ে বড়ো প্রদর্শনী। প্রায় প্রতিটি ঘরে বিদ্যুতের আলো জ্বলছে। এ দেশের ৯৫-৯৬ ভাগ ঘরে বিদ্যুত্ নিয়ে গেছি। এর চেয়ে বড়ো উন্নয়ন মেলা আর কী হতে পারে? আর এর রূপকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে উন্নয়ন মেলা ২০০৯-এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

সমাপনী অনুষ্ঠান শেষ হয়ে গেলেও আয়োজক পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ) জানিয়েছে, ২০ নভেম্বর পর্যন্ত মেলা চলবে। অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘কোনো প্রতিষ্ঠানের কর্মকাণ্ডে হস্তক্ষেপ করা প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্য নয়। আমরা হস্তক্ষেপে বিশ্বাস করি না। প্রধানমন্ত্রী চান, সব সংস্থা যেন তাদের নিজস্ব আইন-কানুন দ্বারা পরিচালিত হয়। যদিও ব্যাংকগুলো নিয়ে আমরা শঙ্কায় আছি।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘আমাদের উন্নয়ন হচ্ছে অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন। ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের ইনক্লুসিভ ইনডেক্সে বাংলাদেশ বিশ্বে ৩৪তম, দক্ষিণ এশিয়ায় সবার ওপরে। বৈষম্য দূর করে সবার জন্য উন্নয়ন করতে কাজ করছে সরকার।’

অনুষ্ঠানের আরেক বিশেষ অতিথি পরিবেশ উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার বলেন, গ্রামবাংলা উন্নত করা না গেলে দেশ উন্নয়নে পিছিয়ে পড়বে। গ্রামে আজও কর্মসংস্থান কম। তাই পিকেএসএফের মতো কার্যক্রম আরো বেশি পরিচালনা করা প্রয়োজন।

সভাপতির বক্তব্যে পিকেএসএফের চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ বলেন, টেকসই উন্নয়ন করতে হলে অর্থনৈতিক, সামাজিক ও পরিবেশগত উন্নয়ন একসঙ্গেই করতে হবে। শুধু কোনো প্রকল্প সামনে আনলেই হবে না, মানুষকেই সামনে আনতে হবে। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন পিকেএসএফের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মইনুদ্দিন আবদুল্লাহ ও উপব্যবস্থাপনা পরিচালক (ডিএমডি) জসিম উদ্দিন।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১২ ডিসেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন