এইচএসসি পরীক্ষা-২০২০

ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা

উদ্দীপকে ভোক্তার নিকট পণ্য পৌঁছানোর ক্ষেত্রে যে সব পদক্ষেপ

প্রকাশ : ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মো. কবির হোসেন (সুজন), সিনিয়র প্রভাষক

ব্যবস্থাপনা বিভাগ, নিকুঞ্জ মডেল কলেজ, ঢাকা।

প্রিয় এইচএসসি পরীক্ষার্থীবৃন্দ, শুভেচ্ছা রইল। সামনে পরীক্ষা। তাই তোমাদের সুবিধার্থে ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ের ১ম পত্র হতে একটি উদ্দীপক এবং উদ্দীপকের আলোকে উত্তর প্রদান করা হলো। আশা করি তা তোমাদের সংগ্রহে থাকবে।

উদ্দীপক : রবিন মজ্জাগত একজন কৃষক। জমিতে ফসল ফলানোই তার একমাত্র কাজ। তাই প্রথমে বীজ হতে চারা, চারা হতে ধান রোপন পরবর্তীতে এর থেকে ভালো ফসল ফলানই তার কাজ। সেই হিসেবে ২০১৬ সালে সে ১২০ মন ধান উত্পাদন করে। উদ্ধৃত্ত ফসল অর্থাত্ ১০০ মন ধান সে মৌসুমী ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রি করে। মৌসুমী ব্যবসায়ীরা আবার আড়ত্দারদের কাছে বিক্রি করে। আড়তদারেরা এই সব ধান গাড়ীতে করে নিয়ে তাদের গুদামে রাখে এবং মৌসুমী ব্যবসায়ীদের টাকা ব্যাংকের মাধ্যমে পাঠিয়ে দেয়। আড়তদারদের কাছ থেকে মিলস্ মালিকেরা এই সব ধান কিনে নিয়ে মিলসে্ ভাঙ্গিয়ে মিনিকেট চাল নামে বিভিন্ন পাইকারী ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রি করে। পাইকারী ব্যবসায়ীরা দেশের বিভিন্ন জায়গায় সরবরাহের ক্ষেত্রে নষ্ট হওয়ার ভয়ে বীমা করে এবং এই সব চাল ভালো নিজস্ব মিলসে্ ভাঙ্গানো এই সব প্রচারণা চালায়। ফলে তাদের বিক্রয় প্রসার ঘটে। এভাবে একজন ভোক্তা তার হাতের কাছে প্রয়োজনীয় পণ্য পেয়ে থাকে।

ঘ) উদ্দীপকে ভোক্তার নিকট পণ্য পৌঁছানোর ক্ষেত্রে যে সব পদক্ষেপ  গ্রহন করা হয়েছে তা ব্যবসায়ের কোন ধরনের শাখা হতে পারে বলে তুমি মনে কর? তোমার মতামত দাও।            

উদ্দীপকে ঘ নং প্রশ্নের উত্তর : উদ্দীপকে ভোক্তার নিকট পণ্য পৌঁছানোর ক্ষেত্রে যে সকল পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে তা ব্যবসায়ের বাণিজ্য শাখার অন্তর্ভূক্ত। শিল্পে উত্পাদিত পণ্য প্রকৃত ভোগকারী বা ব্যবহারকারীর  নিকট পৌঁছানোর ক্ষেত্রে যে সকল প্রতিবন্ধকতা দেখা দেয় মুনাফা অর্জনের উদ্দেশ্যে তা দূরীকরণের জন্য গৃহীত যাবতীয় কাজের সমষ্টিকে বাণিজ্য বলা হয়।

উপরের উদ্দীপকে রবিন তার উত্পাদিত ফসলের উদ্ধৃত্ত অর্থাত্ একশত মন ধান মৌসুমী ব্যবসায়দের কাছে বিক্রি করে। তারা আবার আড়তদারদের কাছে বিক্রি করে তারা মৌসুমী ব্যবসায়ীদের টাকা ব্যাংকের মাধ্যমে পাঠিয়ে দেয়। আড়তদারেরা এই সব ধান গাড়ীতে করে নিয়ে পরিবহনের কাজটি সম্পূর্ণ করে এবং গাড়ীতে করে নিয়ে তাদের গুদামে রাখে মানে গুদামজাতকরণের কাজ  করে। আড়তদার এবং মিলস মালিকের নষ্ট হবার ভয়ে বীমা করে এবং পাইকারী ব্যবসায়ীরা ভালো চাল এই সব প্রচারণা চালায় অর্থাত্ বিজ্ঞাপনের কাজ করে। যেহেতু এখানে ব্যাংক, বীমা, পরিবহন, গুদামজাতকরণ এবং বিজ্ঞাপন এই সকল কাজের সৃষ্টি  হয়েছে সেহেতু এই সকল বাধা দুর করা বাণিজ্যের কাজ। তাই এখানে বাণিজ্যের কথাই বলা হয়েছে। বাণিজ্য ভোক্তার নিকট পণ্য পৌঁছানোর ক্ষেত্রে বেশ কিছু বাধা দূর করে থাকে। তথাপি এই সব বাধা দূর করে নির্বিঘ্নে ভোক্তার নিকট পণ্য পৌঁছিয়ে ব্যবসায়ের একটি মৌলিক কাজ সম্পূর্ণ করে থাকে। যার বদৌলতে একজন ক্রেতা বা ভোক্তা তাঁর হাতের কাছে প্রয়োজনীয় পণ্য পেয়ে থাকে। পাশাপাশি উত্পাদিত পণ্য জনগণের নিকট পরিচিত করে তোলার ক্ষেত্রেও বাণিজ্যের এক বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। এর ফলে ভোক্তা পণ্য সম্পর্কে পরিচিতি লাভ করে এবং উত্পাদনকারীর উত্পাদিত পণ্যের বিক্রয় প্রসার ঘটে। যা ব্যবসায়ের জন্য মঙ্গলজনক।