ঢাকা মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৫ ফাল্গুন ১৪২৬
২৬ °সে

ঘটেই চলেছে দুর্ঘটনা

ভবেরচর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় নেই ফুটওভারব্রিজ

আসাদ উল্লাহ, গজারিয়া (মুন্সীগঞ্জ) সংবাদদাতা
ভবেরচর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় নেই ফুটওভারব্রিজ
গজারিয়া (মুন্সীগঞ্জ) : ভবেরচর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ঝুঁকি নিয়ে মহাসড়ক পারাপার —ইত্তেফাক

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর বাসস্ট্যান্ডে রাস্তা পারাপারের জন্য নেই কোনো ফুটওভারব্রিজ। ব্যস্ততম এই এলাকায় ফুটওভারব্রিজ না থাকায় প্রায়ই সড়ক দুর্ঘটনা ঘটছে বলে স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ। গত কয়েক বছর বিভিন্ন সময়ে স্থানীয় নানা সংগঠন ফুটওভারব্রিজের দাবিতে মানববন্ধন, র্যালি, মহাসড়ক অবরোধ করে সভা, সেমিনার করেছে।

সূত্রে জানা যায়, গত এক বছরে এখানে দুর্ঘটনায় ২০ জনের অধিক লোকের প্রাণহানি হয়েছে। এসব দুর্ঘটনায় অনেকেই আহত হয়ে দুর্বিষহ জীবনযাপন করছেন।

গজারিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আমিরুল ইসলাম বলেন, গজারিয়া উপজেলায় দেড় লক্ষাধিক লোকের বসবাস। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ভবেরচর বাসস্ট্যান্ডটি উপজেলার প্রধান বাসস্ট্যান্ড। উপজেলার প্রধান সড়ক হিসেবে পরিচিত ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ভবেরচর থেকে মুন্সীগঞ্জ সদরের রাস্তা। এখান থেকে দেশের বিভিন্ন স্থানে যাওয়ার জন্য জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মহাসড়কটি পারাপার হতে হয় পথচারীদের। তবে ফুটওভারব্রিজ না থাকায় বিভিন্ন স্থান থেকে আগত লোকজন রাস্তা পারাপার হতে গেলেই ঘটছে সড়ক দুর্ঘটনা। ফুটওভারব্রিজের দাবিতে বিভিন্ন সময়ে এলাকাবাসীর সঙ্গে নানা কর্মসূচিতে একাত্মতা প্রকাশ করে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে আবেদনলিপি পাঠিয়েছি। অজ্ঞাত কারণে এখনো কোনো কাজ হয়নি।

গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. জিয়াউল ইসলাম বলেন, প্রায় দিনই রাস্তা পারাপার হতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় আহতরা চিকিত্সা নিতে আসেন হাসপাতালে। অনেক সময় গুরুতর আঘাতের কারণে আহতদের কেউ কেউ মারাও যাচ্ছেন। ভবেরচরে একটি ফুটওভারব্রিজ থাকলে সড়ক দুর্ঘটনা অনেকটা কমে আসবে বলে মনে করেন তিনি।

এ ব্যাপারে সড়ক ও জনপথ বিভাগের ভবেরচর অঞ্চলের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান বলেন, ভবেরচরে ফুটওভারব্রিজ তৈরিতে এখনো কোনো নির্দেশনা আসেনি।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন