ঢাকা সোমবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২০, ১৪ মাঘ ১৪২৭
২০ °সে

মুক্তি পেতেই বিপাকে অর্জুন-সঞ্জয়ের ‘পানিপথ’

মুক্তি পেতেই বিপাকে অর্জুন-সঞ্জয়ের ‘পানিপথ’
ছবি: সংগৃহীত

গত ৬ ডিসেম্বর মুক্তি পেয়েছে ‘পানিপথ’। মুক্তি পাওয়ার পরই রাজস্থানের জাঠ সম্প্রদায় আপত্তি তুলেছে এই ছবি নিয়ে। এই সম্প্রদায়কে ভুল ভাবে দেখানো হয়েছে অর্জুন কাপুর, সঞ্জয় দত্ত এবং কৃতি স্যানন অভিনীত ‘পানিপথ’ ছবিতে, দাবি তুলেছেন তাদের একাংশ। যা নিয়ে বেজায় চটেছেন সংশ্লিষ্ট সম্প্রদায়ের শীর্ষ স্থানীয় ব্যক্তিরা।

সদাশিব রাও ভাউ যখন আফগান সম্রাট আহমেদ শাহ আবদানির বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে মহারাজ সূরজমলের কাছে সাহায্য প্রার্থনা করেছিলেন, তখন সূরজমল তার পরিবর্তে সদাশিবের কাছে একটি শর্ত রাখেন। যে শর্তে মোটেই রাজি হননি সদাশিব। অতঃপর আফগান সম্রাটের বিরুদ্ধে একজোটে লড়ার প্রস্তাবও নাকচ করে দেন সূরজমল। ছবির এই গল্প নিয়েই আপত্তি তুলেছে জাঠ সম্প্রদায়।

তাদের কথায়, মহারাজ সূরজমলের ভাবমূর্তি নষ্ট করা হয়েছে। যার ফলে ভুল বার্তা পৌঁছচ্ছে মানুষের কাছে। ‘পানিপথ’ প্রদর্শন বন্ধ করার দাবিতে রাজস্থানের জাঠ সম্প্রদায় পরিচালক আশুতোষ গোয়ারিকরের কুশপুতুল দাহ করেছে। যদিও মুক্তির প্রথম দিনই চার কোটির ব্যবসা করে ফেলেছে ‘পানিপথ’।

এর আগে পেশোয়া বাজিরাওয়ের এক বংশধর আপত্তি তুলেছিলেন ছবির সংলাপ নিয়ে। তার কথায়, ‘পানিপথ’ ছবিতে মারাঠা ইতিহাসের ভাবমূর্তি নষ্ট করা হয়েছে।

মূলত, ভুলভাবে দর্শকদের কাছে তুলে ধরা হয়েছে বাজিরাও এবং তার দ্বিতীয় স্ত্রী মাস্তানিকে। ট্রেলারের একটি দৃশ্যে বাজিরাওয়ের স্ত্রী মাস্তানির ভূমিকায় কৃতি শ্যাননকে বলতে শোনা গিয়েছে, ‘ম্যায়নে শুনা হ্যায় পেশোয়া যব আকেলে মুহিম পর যাতে হ্যায় তো এক মাস্তানিকে সাথ লটতে হ্যায়’ অর্থাৎ পোশোয়া যু্দ্ধে গেলে কোনও মাস্তানিকে নিয়েই ফেরেন।

এর আগে ছবিতে সঞ্জয় দত্তের চরিত্র আহমেদ শাহ আবদালিকে নিয়ে আপত্তি তুলেছিলেন আফগানিস্তানের প্রাক্তন রাষ্ট্রদূত ডা. সাইদা আবদালি।

ইত্তেফাক/বিএএফ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
২৭ জানুয়ারি, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন