ঢাকা শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬
২১ °সে

তাবিথের প্রার্থিতার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আপিল বিভাগে

তাবিথের প্রার্থিতার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আপিল বিভাগে
ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। ছবি: ফোকাস বাংলা।

হাইকোর্ট পর্যবেক্ষণের নির্দেশ দিয়ে রিট খারিজ করার পর এবার আপিল বিভাগে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের প্রার্থিতার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আবেদন করছেন বিচারপতি শামসুদ্দীন চৌধুরী মানিক। তিনি জানান, নির্বাচন শেষে বিষয়টি নিয়ে আবেদনের সুযোগ থাকলেও আমরা এখনই আপিল বিভাগে আবেদন করছি।

এর আগে সোমবার বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের প্রার্থিতার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট আবেদনের ওপর শুনানি করেন বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মো. খাইরুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। সেখানে বিষয়টি পর্যবেক্ষণের নির্দেশ দিয়ে রিট আবেদন খারিজ করে দেয়া হয়।

বিচারপতি শামসুদ্দীন চৌধুরী মানিক জানান, হাইকোর্টে শুনানিতে জানানো হয়েছে, আমরা চাইলে নির্বাচনের পরও বিষয়টি নিয়ে আবেদন ও শুনানি করতে পারি। কিন্তু আমরা সেই জন্য অপেক্ষা না করে আপিল বিভাগে আবেদন করছি।

এদিকে তাবিথ আউয়ালের বিরুদ্ধে দেয়া সিঙ্গাপুর সরকারের তথ্যগুলো সেখান থেকে নোটারারি করার কথা বলা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে এরপর আইনি ব্যবস্থা গ্রহণে সম্মত হতে পারে হাইকোর্ট। বিচারপতি মানিক জানান, আমাদের হাতে যথেষ্ট তথ্য প্রমাণ রয়েছে বলেই আপিল বিভাগে যাওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি।

হলফনামায় তথ্য গোপনের অভিযোগে তাবিথ আউয়ালের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশনের কাছে তথ্য উপস্থাপন করার পরও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় হাইকোর্টের শরণাপন্ন হন বলে জানান বিচারপতি মানিক। রবিবার বিচারপতি মানিক বলেন, আমাদের কাছে যথেষ্ট তথ্য প্রমাণ রয়েছে। সিঙ্গাপুর সরকারের দেয়া তথ্যানুসারে তাবিথ আউয়াল সেখানের এক কোম্পানির এক-তৃতীয়াংশের মালিক। তিনি নিজেও বিষয়টি অস্বীকার করছেন না।

এর আগে বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশনার মো. রফিকুল ইসলামের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) বরাবর তাবিথের হলফনামায় সম্পদ গোপনের অভিযোগ পেশ করেন বিচারপতি সামসুদ্দীন চৌধুরী মানিক। এ সময় কমিশন সভায় বিষয়টি নিয়ে আলোচনার আশ্বাস দেয়া হলেও বিষয়টি নিয়ে এখন পর্যন্ত কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি নির্বাচন কমিশন। হাইকোর্ট প্রার্থিতা বাতিল না করে বিষয়টি পর্যবেক্ষণের নির্দেশ প্রদান করে।

ইত্তেফাক/আরএ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন